“মৌলভীবাজারে আদালতের কাঠগড়া থেকে পলাতক আসামী বাবলু পুনঃ গ্রেফতার”

0
51

এম এ কাদেরঃ সিলেটের মৌলভীবাজারে আদালতে বিচারকার্য চলাকালীন সময় কাঠগড়া থেকে পালিয়ে যাওয়া আসামি বাবলু কে গ্রেফতার করেছে মৌলভীবাজার থানা পুলিশ।

পলাতক আসামী বাবলু আহমদ (৩৪), পিতা মৃত আব্দুল মতলিব,গ্রাম: বলিয়ারবাগ , থানা ও জেলা মৌলভীবাজার কে শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) ভোর রাত অনুমান ৪.১৫ ঘটিকার সময় মৌলভীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ এর দিক-নির্দেশনায় এস আই মাহবুব আলম, এস আই কাঞ্চন দাশ, এ এস আই সাইদুর রহমান, কনস্টেবল আলাল, শুকুর ও অতীশদের সহায়তায় তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ থানার পূর্ব তিমিরপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে ।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর সোমবার মৌলভীবাজার দায়রা নং-৪৪৭/১৯, সিআর নং-৫৫৮/১৮(সদর) এনআই এ্যাক্ট ১৮৮১ এর ১৩৮ মামলাটির রায়ে বিচারক আসামী বাবুল আহমেদ’কে ০১(এক) বছরের বিনাশ্রম করাদন্ড ও ৮,০০,০০০ টাকা ( আট লক্ষ টাকা) অর্থদন্ড প্রদান করেন। রায় শুনেই মৌলভীবাজার যুগ্ম জেলা জজ দ্বিতীয় আদালতের কাঠগড়া থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন বাবলু আহমেদ নামে এক সাজাপ্রাপ্ত আসামি। গত বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) এ ঘটনায় মৌলভীবাজার মডেল থানার ইন্সপেক্টর দীপংকর বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন।

এদিকে সংশ্লিষ্ট আদালত পালিয়ে যাওয়া সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ সুপারকে লিখিতভাবে অবগত করেছেন। গত মঙ্গলবার মৌলভীবাজার যুগ্ম জেলা জজ দ্বিতীয় আদালতে এ ঘটনা ঘটেছিল ।

কোর্ট পুলিশ, সংশ্লিষ্ট মামলার আইনজীবী ও আদালত সূত্রে জানা যায়, সৈয়দা লতিফা তালুকদার বাদী হয়ে মৌলভীবাজার জেলার সদর উপজেলার বলিয়ারভাগ গ্রামের মো. মতলিব মিয়ার ছেলে বাবলু আহমেদ কে আসামি করে এনআই অ্যাক্টে (চেক ডিজঅনার) একটি মামলা করেন (মামলা নং ৪৭৭/১৯)। দীর্ঘ শুনানি শেষে গত মঙ্গলবার ছিল চূড়ান্ত রায়ের দিন। বিচারক জিহাদুর রহমান আসামিকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও চেকে উল্লেখিত ৮ লক্ষ টাকা পরিশোধের আদেশ দেন। রায় শুনেই আসামি বাবলু আহমেদ কৌশলে আদালতের কাঠগড়া থেকে পালিয়ে যান। পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

কোর্ট পুলিশের ইনচার্জ ইউসুফ আলী বলেন, রায় শুনার পর কৌশলে আসামি আদালতের কাঠগড়া থেকে পালিয়ে যান। পরে তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) রবিউল হক বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আসামিকে গ্রেপ্তারে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছিলেন।

পরিশেষে ৩০শে সেপ্টেম্বর ভোর রাত আনুমানিক ৪টা ১৫ মিনিটে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃত আসামিকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here