দুর্বৃত্তের দেয়া আগুণে অসহায় পরিবারের বসতঘর পুড়ে ছাই ! খোলা আকাশের নিচে বসবাস !!

0
41

বুলবুল আহমেদ, নবীগঞ্জ ( হবিগঞ্জ) থেকেঃ হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় এক অসহায় দিনমুজুর পরিবারের ঘর-বাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। ফলে, খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবনযাপন করছে পরিবারটি। বুধবার (২৩ মার্চ) দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের বেরীগাঁও গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়- গতকাল বুধবার রাতে প্রতিদিনের ন্যায় উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের বেরীগাঁও গ্রামের ছফি মিয়া অন্ধ স্ত্রী ও সন্তানদেরকে নিয়ে নিজ ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। হঠাৎ আগুণের লেলিহান শিখার তাপে ঘুম ভাঙ্গে দিন মুজুর ছফি মিয়া ও তার পরিবারের লোকজনের। পরে ঘর থেকে বের হতে চাইলে বাহির থেকে দুর্বৃত্তরা দরজা বেঁধে রাখার কারণে দরজা দিয়ে অন্ধ স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে বের হতে প্রাণপন চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে ঘরের বেড়া ভেঙ্গে ঘর থেকে বের হয়ে প্রাণ রক্ষা পান। এসময় তাদের আত্ম- চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসার পূর্বেই ঘরে থাকা ১৭টি মোরগ, ১০টি হাঁস ও নগদ ১০ হাজার টাকা, ঘরের আসবাবপত্র সহ বসত ঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী ৯৯৯ কল দিলে নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী ছফি মিয়ার সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমি অসহায় মানুষ, দিন আনি দিন খাই, অন্যের জায়গায় ঘর বানিয়ে বসবাস করে আসছি। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন হত্যার উদ্দেশ্যে বাহিরের দিকে দরজা বেঁধে আমার ঘরে আগুন দেয়। আমার অন্ধ স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে বের হওয়ার জন্য প্রাণপন চেষ্টা করে ভাগ্যক্রমে ঘর থেকে বের হয়ে দেখতে পাই কয়েক জন লোক দৌড়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ ডালিম আহমেদ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ঘটনায় নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আগুণে বসতঘর পুড়ে যাওয়া বিষয়টি পেয়েছি। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে সহযোগীতা করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here