নবীগঞ্জে দুই গ্রামের সংঘর্ষ, নারীসহ আহত অর্ধশতাধিক

0
229

এফআইআর টিভি অনলাইন ডেক্সঃ হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের মডেল বাজার এলাকায় দুই গ্রামের সংঘর্ষে প্রায় অর্ধ শতাধিক মানুষ আহত হয়েছে। এ সময় ঢাকা সিলেট মহাসড়ক দুই ঘন্টা বন্ধ থাকার পর যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

বুধবার ( ২৪ ফেব্রুয়ারি ) বেলা আড়াইটার দিকে উপজেলার মংলাপুর গ্রামবাসী ও পিটুয়া গ্রামের মানুষের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় । এ সংঘর্ষের ঘটনায় দু-পক্ষের প্রায় অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষ গুরুতর আহত ও মহাসড়কের পাশের দোকান পাট ভাংচুরের ঘটনাও ঘটেছে।

সংঘর্ষ পরিস্থিতি অবগত হলে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে । এতে দুই গ্রামের সংঘর্ষ থামে দেড় ঘন্টা পর । প্রায় দুই ঘন্টা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক বন্ধ থাকার পর যানচলাচল স্বাভাবিক হয় ।জানা যায়, তিন বছর আগে নবীগঞ্জ উপজেলার ০৫নং আউশকান্দি ইউনিয়নের মংলাপুর গ্রামে রাতের অন্ধকারে একই গ্রামের মৌলানা মোস্তফা মিয়ার পুত্র জামিল হোসেনকে তার ঘরে ঢুকে নৃশংসভাবে হত্যা এবং ডাকাতি করে।

দীর্ঘদিন জেলখেটে আইনের ফাঁক দিয়ে বেরিয়ে আবার বেপরোয়া হয়ে উঠেছে ডাকাতদলের বর্তমান দলনেতা সোহেল এছাড়াও সোহেল বিভিন্ন ধরনের তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ফেসবুকে ফেইক আইডি ব্যবহার করেও মানুষের সাথে প্রতারনা করে আসছে। এরই প্রতিবাদ করতে গেলে আজকে এই সংঘর্ষ হয়।

এ ব্যাপারে মংলাপুর গ্রামের সােহেল আহমেদ জানান, কোনাে একটি ভুয়া ফেইসবুক আইডি থেকে ৪ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইকবাল হােসেন এর বিরুদ্ধে লেখালেখি করে । এতে তাহারা সন্দেহের বাদ বাদে আমার বিরুদ্ধে । অভিযােগ আনে । আমাকে এই বিষয়ে ইউপি সদস্য কর্তৃক জিজ্ঞাসা করা হলে আমি ভুয়া আইডির সাথে সম্পৃক্ত নয় বলে জানাই ।

ইউপি সদস্য ইকবাল হােসেন জানান- আমাদের গ্রামের পাশে চাষকৃত কৃষি জমি রয়েছে। জমিগুলােতে আমরা ধানের চারাও রােপন করেছি । আমি ও এলাকাবাসী সােহেল এর ভাই মােস্তফাকে হাওড়ে তাদের হাঁস না ছাড়তে বলেছি । এ সূত্রে ধরে মডেল বাজার এলাকায় মােস্তফার সাথে কথাকাটি হলে সােহেল চলে আসে । পরে আমার সাথে থাকা সিএনজির ড্রাইভার ও আমার উপরে তারা দুই ভাই মিলে লাঠিদিয়ে হামলা চালায় ।

একপর্যায়ে সংঘর্ষ দুই গ্রামবাসীর মধ্যে গিয়ে বিশাল আকার ধারন করে । নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি মােহাম্মদ ডালিম আহমেদ জানান , বিষয়টি জানার সাথে সাথে একদল ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি । এখন পযন্ত দুই গ্রাম তাকি কোন অভিযোগ দেয়া হয় নাই অভিযোগ দিলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here