নৌকা’র প্রার্থীকে ১৩টি ভোটে হারিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী‘র আনারস বিজয়ী

0
263

আজমিরীগঞ্জের জলসুখা ইউপি’র স্হগিত হওয়া কেন্দ্রে ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে । ১৩টি ভোটের ব্যাবধানে নৌকা’র প্রার্থী শিখাকে হারিয়ে আনারস প্রতিকের বিদ্রোহী প্রার্থী ফয়েজ আহমেদ খেলু মিয়ার জয়লাভ ।।

আকিকুর রহমান রুমন, বিশেষ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জ জেলার আজমিরীগঞ্জ উপজেলার জলসুখা ইউনিয়নের স্থগিত হওয়া কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে অবশেষে মাত্র ১৩টি ভোটের ব্যাবধানে নৌকা’র প্রার্থী শিখাকে হারিয়ে আনারস প্রতিকের বিদ্রোহী প্রার্থী ফয়েজ আহমেদ খেলু মিয়া জয়লাভ করেন।

মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২নং জলসুখা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের (আটপাড়া দক্ষিণ) স্থগিত হওয়া কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ শুরু হয় সকাল ৮ থেকে। ভোট গ্রহন চলে টানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত।এতে মোট ৯৯৫টি ভোটের মধ্যে ৮৪৯টি ভোট কাস্টিং হয়।এর মধ্যে নৌকার মাঝি রোকসানা আক্তার শিখা পান ৪০৬টি আর বিদ্রোহী প্রার্থী ফয়েজ আহমেদ খেলু পায় ৪৩৪টি ভোট।এ ছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী এইচ এম জামির পান মাত্র ১টি ভোট। ভোটের দিক দিয়ে ৩নং জলসুখা ইউনিয়নের ৯টি কেন্দ্রে মোট ভোটারের সংখ্যা ১২ হাজার।এর মাঝে নৌকার প্রার্থী রোকসানা আক্তার শিখা পান ৪৫৪৫টি আর বিদ্রোহী প্রার্থী ফয়েজ আহমেদ খেলু আনারস প্রতীকে পান ৪৫৫৮টি এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী এইচ এম জামির মোটর সাইকেল প্রতীকে পান ৫০টি ভোট।

উল্লেখ্য গত ১১ নভেম্বর ২য় ধাপের ইউপি পরিষদ নির্বাচনে আজমিরীগঞ্জ উপজেলার ৩নং জলসুখা ইউনিয়নের ৫নং কেন্দ্রের ২নং জলসুখা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের (আটপাড়া দক্ষিণ) ভোট কেন্দ্রে ভোট গণনাকালীন সময়ে নৌকার প্রার্থী ও আনারস প্রার্থীর মাঝে সহিংসতা দেখা দিলে ভোটের বাক্স পুড়িয়ে দেয়া হলে ওই কেন্দ্রের ভোট বাতিল ঘোষণা করে উপজেলা নির্বাচন কমিশন।

এই নির্বাচন সম্পর্কে জয়লাভ কারী চেয়ারম্যান ফয়েজ আহমেদ খেলু মিয়া জানান,নির্বাচনটি সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ হয়েছে এবং পুলিশ প্রশাসন,সাংবাদিক সহ সবাইকে তিনি তার ইউনিয়নের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা অভিনন্দনের পাশাপাশি কৃতজ্ঞতা ও প্রকাশ করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here