বগুড়ায় শেরপুর উপজেলায় প্রেম করে বিয়ে, চার মাসের মাথায় এক নববধূর মরদেহ উদ্ধার

0
249

এফআইআর টিভি অনলাইন ডেক্সঃ শনিবার (৬ মার্চ) সকালে উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের ফুলজোড় গ্রাম থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের নাম মিতু খাতুন (২০)।মিতু  টাঙ্গাইল জেলার সদর উপজেলার মিজানুর রহমানের মেয়ে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ফুলজোড় গ্রামের জুবায়ের খানের সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে টাঙ্গাইল জেলার সদর উপজেলার মিজানুর রহমানের মেয়ে মিতু খাতুনের পরিচয় ঘটে। সেইসঙ্গে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। একপর্যায়ে বিগত চারমাস আগে উভয় পরিবারের সদস্যদের না জানিয়ে পালিয়ে বিয়ে করেন তারা।

স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মতবিরোধ ও পরিবারে অশান্তি দেখা দেয়। এরই একপর্যায়ে শুক্রবার (০৫মার্চ) দুপুরে খাবার খেয়ে গৃহবধূ মিতু শয়নকক্ষের দরজা-জানালা বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়েন। দীর্ঘ চার থেকে পাঁচ ঘন্টা অতিবাহিত হওয়ার পর ঘুম থেকে জেগে না উঠায় দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে গৃহবধূ মিতুকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে থানায় খবর দেওয়া হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে নিহতের লাশ উদ্ধার করেন।

শেরপুর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম বলেন, শয়নকক্ষের তীরের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়। তবে প্রাথমিকভাবে মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার গেলেই কেবল মৃত্যুর কারণ সঠিক করে বলা সম্ভব হবে।

শেরপুর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম আরও জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা নেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here