মুসলমানদের জঙ্গি তকমা দিয়ে সন্ত্রাসী গোষ্ঠি হিসেবে চিত্রিত করতে চায় – আল্লামা ছৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী

0
68

এফআইআর টিভি অনলাইন ইসলামিক ডেস্কঃ বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত সভাপতি পীরে কামেল আল্লামা ছৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী বলেছেন- ইসলাম হচ্ছে একটি প্রগতিশীল ও শান্তির ধর্ম। যেথায় অবাঞ্ছিত সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদ এর মত নেতিবাচক বিষয় একেবারেই পরিত্যাজ্য। ইসলাম অন্য ধর্মের প্রতি কোনপ্রকার কটাক্ষকে কস্মিনকালেও সমর্থন করে না। কেননা আল্লাহ প্রিয় নবী (দঃ) জাতি, ধর্ম, বর্ণ, গোত্র ও সম্প্রদায় নির্বিশেষে তাবৎ দুনিয়ার কল্যাণ স্বরূপ প্রেরিত হয়েছেন। যিনি ঐতিহাসিক মদিনা সনদ প্রণয়নের মাধ্যমে ইহুদি, পৌত্তলিক, খ্রিস্টান ও মুসলমানদের নিয়ে মদিনাতে একটি স্বাধীন-স্বতন্ত্র জাতি ও সার্বভৌম প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করে বিশ্ব ইতিহাসে অসাম্প্রদায়িকতার অনন্য এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন। অথচ দূঃখজনক হলেও সত্য যে, একটি কুচক্রীমহল মুসলমানদের বিচ্ছিন্নতাবাদি তথা জঙ্গি তকমা দিয়ে বিশ্ব পরিমন্ডলে একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠি হিসেবে চিত্রিত করতে চায়।

আল্লামা শায়খ খোন্দকার গোলাম মাওলা বলেছেন- ইসলামে শ্বাশত মর্মবাণীর সঠিকতা নিরূপণে অনেকেই ব্যর্থ হয়ে মুসলিম কমিউনিটিতে অনৈক্য-বিভক্তি ও বিভাজনকে জিইয়ে রেখেছে। যে কারণে ধর্মানুরাগী মানুষের একটি অংশ ক্রমাগত ভ্রষ্টতার দিকে ধাবিত হয়ে জঙ্গিবাদসহ বিভিন্ন গর্হিত কাজে লিপ্ত হচ্ছে। ডঃ আল্লামা কফিল উদ্দীন সরকার সালেহী বলেছেন- এমনকি ইসলামে পরিপূর্ণভাবে নিষিদ্ধ এমন কতিপয় গর্হিত কাজকে পূণ্য হিসেবে মনে করছে । উপরন্তু ক্রমাগত বিভিন্ন মাজহাবি ফেতনা বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মন্তব্য করে বলেন- আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতই ইসলামের মূলধারা। যেটি মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে জাতীয় জীবনে একটি মেধাবী, দক্ষ ও আদর্শিক প্রজন্ম গঠনে অহর্নিশ কাজ আঞ্জাম দিয়ে যাচ্ছে। অধ্যক্ষ আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর বলেছেন-সাম্প্রতিক সময়ে রাশিয়া বনাম ইউক্রেন যুদ্ধ বিশ্ব শান্তির অন্তরায় বলে তিনি উল্লেখ করেন। এটিকে থামানো না গেলে ক্রমাগত অস্থির হয়ে উঠবে তাবৎ বিশ্ব। সংঘাত ও হানাহানি ছড়িয়ে পড়বে সর্বত্র। এমনকি যার নেতিবাচক প্রভাব থেকে বাংলাদেশও কোনভাবেই মুক্ত থাকবে না। তাই জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক শক্তিসমূহকে দায়িত্বশীল ভূমিকায় এগিয়ে আসার উপর তিনি গুরুত্বারোপ করেন। পাশাপাশি বাংলাদেশ সরকারকে কুটনৈতিক তৎপরতার মাধ্যমে যুদ্ধ বন্ধের কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণেরও উদাত্ত আহবান জানান।
ডঃ আব্দুল্লাহ আল মারুফ বলেছেন- বিশ্বের দেশে দেশে মুসলমানরা নির্যাতিত ও নিগৃহীত। ইরাক, আফগানিস্তান, সিরিয়া, মিয়ানমার, ফিলিস্তিন, ভারত ও কাস্মীরসহ প্রায় প্রতিটি মুসলিম অধ্যুষিত দেশসমূহতে অব্যাহতভাবে চলমান রয়েছে জাতিগত নিধনযজ্ঞ। তাই মুসলমানদের সুরক্ষায় আরব লীগ ও আই সিকে বলিষ্ট পদক্ষেপে এগিয়ে আসার উপর তিনি গুরুত্বারোপ করেন।
আল্লামা খাজা আরিফুর রহমান তাহেরী বলেছেন- নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতি সহনীয় মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। সাধারণ ভোক্তা শ্রেণীর দুর্ভোগ-ভোগান্তির কোন অন্ত নেই। জনশ্রুতি আছে একটি অসাধু ব্যবসায়ী দুষ্টচক্র অধিক মুনাফার লোভে সিণ্ডিকেট তৈরী করে বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করছে। এতে সরকার দলীয় অনেকেরই জড়িত থাকার গুঞ্জনও শোনা যায়। যাদের নেপথ্য কারসাজিতে পণ্যমূল্য স্বাভাবিকতা হারিয়ে ফেলে। এহেন অনিয়ন্ত্রিত পণ্যমূল্য রাষ্ট্র পরিচালনার ক্ষেত্রে ব্যর্থতার দূর্বল চিত্রের বহিঃপ্রকাশ বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন- জনস্বার্থে অবিলম্বে পণ্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে বাজার মনিটরিং জোরদার করা প্রয়োজন। এছাড়া সংকট সৃষ্টিকারী উক্ত চিহ্নিত দুষ্টচক্রকে খুঁজে বের করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্যও জোর দাবী জানানো হয়।
বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত এর উদ্যোগে কেন্দ্রীয় কাউন্সিল ও ওলামা- মাশায়েখ সম্মেলনে বক্তারা উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত এর সভাপতি পীরে কামেল আল্লামা ছৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে উপস্থিত ছিলেন-আল্লামা শায়খ খোন্দকার গোলাম মাওলা,অধ্যক্ষ আল্লামা জয়নুল আবেদীন জুবাইর,ড. আল্লামা কফিল উদ্দীন সরকার সালেহী,ডঃ আব্দুল্লাহ আল মারুফ, আল্লামা খাজা আরিফুর রহমান তাহেরী, আল্লামা মোশাররফ হোসাইন হেলালী, আল্লামা অধ্যক্ষ এস এম ফরিদ উদ্দীন, আল্লামা আলাউদ্দিন জিহাদী, আল্লামা কাজী জসিম উদ্দিন, এম সোলায়মান ফরিদ, স ম হামেদ হোসাইন, মাওলানা জাকির হোসাইন,
আলহাজ্ব এইচ এম মুজিবুল হক শাকুর, হাসানুর রহমান হোসাইন নক্সবন্দি, অধ্যক্ষ এম ইব্রাহীম আখতারী, খান এ সবুর, পীরজাদা নাজমুল হক আখন্দ, জহিরুল ইসলাম ফরিদী, মাওলানা জাকের আহমদ সিদ্দিকী, অধ্যাপক ছৈয়দ হাফেজ আহমদ, এড, শাহিদুল আলম রিজভী, আলহাজ্ব মাওলানা এ এম মঈনউদ্দীন চৌধুরী হালিম, মুফতি মাওলানা নিজাম উদ্দীন নোমানী, এডভোকেট শাহেদ রেজভী, নাইম উদ্দীন, মাওলানা হেলাল উদ্দীন আলকাদেরী, মাওলানা শামসুদ্দোহা, এম এম নাঈম উদ্দীন, গোলাম হায়দার হাসিব, ফরিদ মজুমদার প্রমূখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here