হবিগঞ্জের বানিয়াচং কুশিয়ারা নদী থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার !

0
220

নির্বাচনের প্রতিপক্ষের শিকার হতে পারে এই অজ্ঞাত যুবকের লাশ ।। এই নিয়ে আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠেছে জনতার মুখে মুখে ! 

আকিকুর রহমান রুমন, বিশেষ প্রতিনিধিঃ  হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের কুশিয়ারা নদী থেকে পরিচয়হীন এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে বানিয়াচং থানা পুলিশ। থানা পুলিশ সূত্রে জানাযায়,২৯নভেম্বর বানিয়াচং উপজেলার ৫নং দৌলতপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত মার্কুলী বাজারস্থ সরকারি খাদ্য গোদামের পশ্চিম দিকে কুশিয়ারা নদীতে একটি ভাসমান লাশ দেখতে পান স্হানীয়রা।

এই বিষয়টি দেখে তারা থানা পুলিশ প্রশাসনকে অবগত করেন। এমন সংবাদ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি এমরান হুসেনের নেতৃত্বে মার্কুলি ফাঁড়ির পুলিশের সহযোগীতা নিয়ে তিনি সন্ধ্যা ৭টা ৫মিনিটে ঘটনাস্থলে অবস্হান করে কুশিয়ারা নদী থেকে লাশটি উদ্ধার করেন। এবং লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে লাশটি ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করে ।

লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করা কালীন সময়ে এই অজ্ঞাত যুবকের উচ্চতা ৫ ফুট ৩ ইঞ্চি পড়নে ছিলো সাদা পুলহাতা গেঞ্জি ও হালকা ব্লু-কালারের টাউজার। এছাড়াও তার গলায় রয়েছে ৩টি তাবিজ এবং ডান হাতের আঙুলে সিলভার কালারের একটি আংটি যার মধ্যে সবুজ পাথর রয়েছে । এসব থানার রিপোর্টে লিপিবদ্ধ করা হয়।

এব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি এমরান হুসেনের সাথে রাত ১০টা ১৫মিনিটে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,আমি আমার থানার ফেইসবুক আইডি থেকে একটি পোস্টও করেছি এবং আমাদের সাথে যোগাযোগের স্বার্থে-আমার নাম্বারটি (০১৩২০-১১৮৯৩৫) এছাড়াও ডিউটি অফিসারের (০১৩২০-১১৮৯৪০) নাম্বারটিও দিয়ে রেখেছি । এছাড়াও আমাদের সমগ্র বাংলাদেশের থানা গুলোতে এই লাশের পরিচয় সনাক্ত করণের বার্তাটি প্রেরন করে দিয়েছি। এমনকি আপানাদের মতো সকল সংবাদকর্মী সাংবাদিক ভাইদেরকে তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করেছি শুধু লাশের পরিচয় সনাক্ত করণের জন্য। এবিষয়ে কোন ধরনের মামলা এন্ট্রি হয়েছে কিনা জানতে চাইলে,তিনি আরও জানান,এই মাত্র তিনি মার্কুলী থেকে এসেছেন এবং লাশটি হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরন করেন। এছাড়াও ফরেনসিক রিপোর্টের জন্য লাশের বেশকিছু আলামত দেওয়ার কাজে একটু ব্যাস্ত রয়েছেন।তবে পরে মামলা হবে বলেও জানান।।

অন্যদিকে এই বিষয়টি জানাননি হয়ে পড়লে,লোকমুখে বিভিন্ন ধরনের আলাপ আলোচনা শুনা যাচ্ছে এবং বিভিন্ন জনের মন্তব্য করতেও শুনা যাচ্ছে এই হত্যাকান্ডটি এমনও হতে পারে,কোননা কোন এলাকার ইউপি নির্বাচনের প্রতিপক্ষের শিকার হয়ে তাকে হত্যা করে যেকোন নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে এমনও হতে পারে । সবাই আবার এইটাও দাবী জানাচ্ছেন পুলিশ প্রশাসনের নিকট এই যুবকের পরিচয় নিশ্চিত করে প্রকৃত ঘটনাটি প্রকাশ করবের জাতির সামনে এবং অপরাধীদের দৃষ্টান্ত ফাঁশির ব্যবস্হা করবেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here