হবিগঞ্জ বানিয়াচং সড়কে ডাকাতির ঘটনায় ২৪ঘন্টায় রহস্য উন্মোচন করে টাকাসহ দুই ডাকাত গ্রেফতার

0
98

আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি।। পলাতক ডাকাত গ্রেফতাতারে অভিযান চলছে। 

আকিকুর রহমান রুমন, বিশেষ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জ বানিয়াচং সড়কের শুটকি ব্রীজের পাশে রাত ৮টার দিকে ২০ফেব্রুয়ারী একটি ডাকাতি সংঘটিত হয়।

৮/৯জনের একদল মুখোশধারী ডাকাত বানিয়াচং থেকে ব্যাবসার পাওনা টাকা আদায় করে মোটরসাইকেল যোগে হবিগঞ্জ ফেরার পথে উল্লেখিত স্হানে পৌঁছলে ডাকাতরা ব্যাবসায়ী হাফিজুর রহমান ও তার সাথে থাকা ম্যানেজার বিক্রম শুক্ল বৈদ্য’র মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে।
এবং ব্রীজের পাশে একটি স্হানে তাদেরকে বেঁধে রেখে সাথে থাকা ৪লাখ টাকা ও ২টি এনড্রোয়েট মোবাইল ফোন সেট নিয়ে যায়।
পরে ডাকাতির স্বীকার হওয়া হবিগঞ্জের চৌধুরী বাজারের আলু ব্যাবসায়ী এই বিষয়টি থানা পুলিশকে অবগত করেন।
তাৎক্ষণিক বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)এমরান হুসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ বিভিন্ন স্হানে অভিযান পরিচালনা করে ২৪ঘন্টার ভিতরে কুখ্যাত ডাকাত ফজলুকে ডাকাতিতে তার বন্টনে পাওয়া ১৫হাজার টাকা উদ্ধারসহ গ্রেফতার করা হয়।
পরে ডাকাত ফজলু ডাকাতির ঘটনা স্বীকার করে এবং জড়িত আরও ৮জনের নাম উল্লেখ করে হবিগঞ্জ আদালতে ১৬৪ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে।
এদিকে থানা পুলিশের চলমান অভিযানে ২২ফেব্রুয়ারী রাতে ডাকাতির ঘটনায় জড়িত কুখ্যাত ডাকাত জুয়েলকে গ্রেফতার করে ২৩ফেব্রুয়ারী আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরন করা হয়।
গ্রেফতারকৃত কুখ্যাত দুই ডাকাত ফজলু ও জুয়েল একই এলাকার বাসিন্দা।
বানিয়াচং উপজেলা সদরের ৩নং দক্ষিণ পূর্ব ইউনিয়নের দোয়াখানী মহল্লার মৃত সওদাগর উল্বার পুত্র ফজলু(৫০)মিয়া ও মৃত আব্দুল্লাহ্ মিয়ার পুত্র জুয়েল(৩৫)মিয়া।
এব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)এমরান হুসেন জানান,ডাকাতির ঘটনার পর থেকে বিভিন্ন ফৌর্স মাধ্যমে ঘটনায় জড়িত ২ডাকাতকে গ্রেফতার করাসহ ডাকাতি হওয়া কিছু টাকাও উদ্ধার করা হয়েছে।
গ্রেফতার হওয়া ডাকাত ঘটনার দায় স্বীকার করে এবং আরও জড়িত ৮জনের নাম উল্লেখ করে হবিগঞ্জ আদালতে ১৬৪ধারায় স্বীকারোক্তি জবানবন্দী প্রদান করে।
এরই ধারাবাহিকতায় পলাতক থাকা অন্যান্য ডাকাত গ্রেফতারে বানিয়াচং থানা ছাড়া বিভিন্ন স্হানে কয়েকটি ইউনিটে বিভক্ত হয়ে অভিযান পরিচালনা করে যাচ্ছেন তিনি।
শীঘ্রই পলাতক ডাকাতদেরকেও গ্রেফতার করার আশ্বাস প্রদান করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here