হাতীবান্ধায় ৮ বছরের শিশুকে ধর্ষন চেষ্টা !  ৪০ হাজার টাকায় মিমাংসার পায়তারা 

0
98

এস এম আলতাফ হোসাইন সুমন, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ২য় শ্রেনীর এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে আছিম উদ্দিনের (৫০) বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে হাতীবান্ধা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন । এর আগে শুক্রবার বিকেলে উপজেলার সিন্দুর্না ইউনিয়নের দক্ষিণ সিন্দুর্না ( ৬নং ওয়াড) এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। অভিযুক্ত আছিম উদ্দিন উপজেলার দক্ষিন সিন্দুর্না গ্রামের মৃত শহির উদ্দিনের ছেলে।

এদিকে ওই অভিযোগ তুলে নিতে এবং মিমাংসা করার জন্য চাপ দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে সির্দুনা ইউনিয়নের সদ্যনির্বাচিত চেয়ারম্যান খতিব উদ্দিনের বিরুদ্ধে।

তবে ইউপি চেয়ারম্যান খতিবউদ্দিন বলেন, আমি স্থানীয় মেম্বারের সাথে এ বিষয়ে কথা বলেছিলাম মাত্র কোন আপোষ মিমাংসা করার জন্য কাউকে চাপ দেইনি।  এক  প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,  যার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি প্যারালাইজড রোগী, এবং আমার থেকেও তিন বছরের বড়।

জানা গেছে, অভিযুক্ত আছিম উদ্দিন প্রায়ই ওই শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন সময় খারাপ প্রস্তাব দিয়ে আসছিল । এমনকি চকলেট ও টাকা পয়সার লোভও দেখাতেন তাকে । এমতাবস্থায় ঘটনাট দিন ওই শিক্ষার্থী আছিম উদ্দিনের বাড়ির উঠানে অন্য শিশুদের সাথে খেলতে যায়। তখন তাকে একা পেয়ে বাড়ির পিছনের বাশ ঝাড়ে নিয়ে যায় অভিযুক্ত। এ সময় ওই শিশুটির স্পর্শ কাতর স্থানে যৌন হয়রানি করেন আছিম উদ্দিন। শিশুটি কান্না শুরু করলে আছিম উদ্দিন তাকে রেখে সটকে পড়েন। ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর বাবা বলেন, আমার বাবার বয়সী একটা মানুষ। ভাবতেই কেমন লাগে? সে প্রায় আমার মেয়েকে উল্টা পাল্টা কথা বলতো। বিভিন্ন সময় চকলেট ও টাকা দিতে চাইতো। আমার মেয়েকে সে যেটা করার চেষ্টা করেছে তার জন্য আমি ওই লোকের কঠিন শাস্তি চাই। থানায় অভিযোগ করেছি, তার যেন যথাযত ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত আছিম উদ্দিন দাবী করেন , আমার বলার কোন ভাষা নেই। এটা সম্পূর্ন মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, অভিযোগ পাওয়া গেছে ,  তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here